বিজ্ঞাপন

header ads

বাড়ির লোকজনদের করোনার সংক্রমণের আশঙ্কা থেকে বাঁচাতে যা করতে হবে

অনলাইন রিপোর্ট করোনারভাইরাস যেন না প্রভাব বিস্তার করতে পারে এই কারণে লকডাউন চলছে। চলবে আরও বেশ কয়েক দিন। কিন্তু সকালে অন্তত বাজারটুকু করতে তো আমাকে, আপনাকে কিছু ক্ষণের জন্য হলেও বাড়ি থেকে বেরতে হচ্ছে। খুব প্রয়োজনে ছুটে যেতেই হচ্ছে ওষুধের দোকান বা ডাক্তারের চেম্বারে। সে ক্ষেত্রে মাস্ক আর হাতে গ্লাভস পরে বেরলেও ফেরার পর তো আমাদের থেকে বাড়ির লোকজনের সংক্রমণের আশঙ্কা থেকেই যায়। তা থেকে কী ভাবে বাঁচাব আমাদের বাড়ির লোকজনদের ? ব্যাপারে মেডিসিন বিশেষজ্ঞ অরিন্দম বিশ্বাস জানাচ্ছেন, বাইরে থেকে বাড়ি ফেরার পরেই কয়েকটি নিয়ম বাধ্যতামূলক ভাবে আমাদের মেনে চলতে হবে। আমাদের পরিবারের লোকজনকে করোনাভাইরাসের সংক্রমণের হাত থেকে বাঁচাতে। তাঁর কথায়, ‘‘নিয়মগুলি একেবারে অক্ষরে অক্ষরে মেনে চলতে হবে। কোনও ধাপ ভুলে গেলে চলবে না।’’

 

# সাধারণ মাস্ক ব্যবহার করলেবাড়ি ফিরেই সেটিকে নির্দিষ্ট জায়গায় বর্জন করতে হবে।
# ওইমাস্ক আর ব্যবহার করা যাবে না।
# বাইরে থেকেফেরার পর প্রত্যেকটি মাস্ক বাড়ির একটি জায়গায় ফেলতে হবে।
# মাস্কগুলিকে নানাজায়গায় ছড়িয়ে ছিটিয়ে ফেলা যাবে না।
# এরপর দুটি হাত সাবান/স্যানিটাইজার দিয়ে খুব ভাল ভাবে ধুয়ে নিতে হবে।
# তারপর ঢুকে যেতে হবে বাথরুমে।
# সেখানে গিয়েপোশাক ছাড়তে হবে।
# ভালভাবে স্নান করতে হবে।
নতুনপোশাক পরে বাড়ির অন্যদের মুখোমুখি হতে হবে।
অরিন্দম এওজানিয়েছেন, মাস্ক যদি একেবারে সাধারণ না হয়, সেটা যদি হয় সার্জিক্যাল মাস্ক, তা হলে বাইরে থেকে বাড়িতে ফেরার পর সেই সার্জিক্যাল মাস্ক আর ফেলে দেওয়ার প্রয়োজন নেই। সেই সার্জিক্যাল মাস্ক, ডেটল বা স্যাভলন অথবা গরম জলে ধুয়ে নিলেও চলবে।
চিকিৎসকদের বক্তব্য, এইনিয়মগুলি অক্ষরে অক্ষরে মেনে চললেই বাইরে থেকে বাড়িতে ফেরার পর পরিবারের লোকজনদের সংক্রমণের আশঙ্কা কমাতে পারব আমরা। না হলে বিপদটা কিন্তু থেকেই যাবে।

সূত্র : আনন্দাবাজার পত্রিকা

Post a Comment

0 Comments