বিজ্ঞাপন

header ads

পাবনায় ডাক্তার-নার্স সহ হোম কোয়ারেন্টাইনে ৭৬৬ জন



অনলাইন রিপোর্ট ।। পাবনায় ডাক্তার ও নার্স সহ ৭৬৬ জন হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছে। এদের মধ্যে প্রবাসী ও তাদের সংস্পর্শে যারা এসেছেন তারা সহ নতুন করে পাবনা জেনারেল হাসপাতালের ৯ জন ডাক্তার ও নার্সকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন সিভিল সার্জন অফিস পাবনা। যে ডাক্তার নার্সদেরকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে তারা করোনার লক্ষণ নিয়ে আসা এক যুবকের চিকিৎসা সেবায় নিয়োজিত ছিলেন বলে জানা গেছে। পাবনা সিভিল সার্জন ডাঃ মেহেদী ইকবাল জানান, প্রাথমিক লক্ষনগুলো দেখে সন্দেহজনক হিসাবে ঐ যুবককে কোয়ারেন্টাইনে থাকাসহ হাসপাতালের যেসকল চিকিৎসক ও নার্স ওই রোগীকে চিকিৎসা সেবা প্রদান করেছেন । তাদেরকেও দ্রুত হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। আর ওই রোগীর নমুনা সংগ্রহের জন্য আইইডিসিআরকে অবহিত করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ। এদিকে করোনা ভাইরাস আতঙ্কে হাসপাতালে জরুরী সেবা পাচ্ছে না বলে রোগীর স্বজনরা অভিযোগ করেছেন। রোগীদের জরুরি সেবা নিশ্চিত করতে তারা পদক্ষেপ নেওয়া আহবান জানিয়েছেন। হাসপাতালে রোগীদের সেবায় নিয়জিত ডাক্তার নার্সদের মধ্যেও চরম আতঙ্ক বিরাজ করছে। এ অবস্থায় ডাক্তার নার্সদের মনোবল যেন ভেঙে না পড়ে সে বিষয়ে এখনি পদক্ষেপ নেওয়া প্রয়োজন। করোনার পরিস্থিতি যেন দেশে ও উত্তরের জেলা পাবনায় আর সংকটময় না হয়ে ওঠে সে লক্ষ্যে গত কয়েকদিন যাবত সাহসীকতার সাথে কাজ করে যাচ্ছে পাবনা জেলা পুলিশ। বিদেশ ফেরতদের হোম কোয়ারেন্টাইনে, জানগনকে সচেতন আর সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিতে কাজ করে যাচ্ছে জেলা পুলিশ। নোভেল করোনা ভাইরাস (কোভিড- ১৯) যেন ছড়িয়ে না পরে সেক্ষেত্রে পাবনা শহর ও গ্রামে গ্রামে ব্যাপক নজরদারি রাখছে তারা। সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে চলা ও বিশেষ কাজ না থাকলে ঘর থেকে না বের হওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন তারা। গতকাল শহরের বেশ কয়েকটি পয়েন্টে তারা ব্যাপক গনসচেতনতা মূলক কার্যক্রম চালিয়েছে। 

Post a Comment

0 Comments