বিজ্ঞাপন

header ads

ঢাকার বাইরে করোনা শনাক্তে প্রথম ল্যাব হচ্ছে রাজশাহীতে



অনলাইন রিপোর্ট করোনাভাইরাস সংক্রমিত কোভিড-১৯ রোগ শনাক্তে ঢাকার বাইরে প্রথম রাজশাহীতেই পলিমার চেইন রিঅ্যাকশন (পিসিআর) মেশিন স্থাপন করা হচ্ছে। রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজে (রামেক) এখন পুরোদমে চলছে ল্যাব প্রস্তুতের কাজ। খুব স্বল্প সময়ের মধ্যেই এসব কাজ শেষ হয়ে পরীক্ষা শুরু হবে। এর মধ্য দিয়ে রাজশাহীর করোনা পরিস্থিতি নিয়ে রাজশাহীর চিকিৎসকদের উৎকণ্ঠা কাটছে। কারণ, কারও মাঝে জ্বর, কাশি, শ্বাসকষ্ট পাতলা পায়খানার মতো কোভিড-১৯ এর মতো উপসর্গ থাকলে তার নমুনা পরীক্ষা করা সম্ভব হবে দ্রুত সময়ের মধ্যেই। ফলে অজানা আতঙ্ক আর ভর করবে না চিকিৎসকদের মনে। রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. নওশাদ আলী বলেন, রাজশাহীতে এখনও করোনার কোনো রোগি শনাক্ত হয়নি। তারপরেও চিকিৎসকরা দায়িত্ব পালনের ক্ষেত্রে উৎকণ্ঠার মধ্যে থাকছেন। তবে পিসিআর মেশিন চালু হয়ে গেলে তখন এই উৎকণ্ঠা কেটে যাবে। কারণ, তখন নিশ্চিতভাবেই বলা যাবে কেউ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত কি না। কেউ শনাক্ত হলে তখন তার ব্যাপারে অত্যন্ত সতর্কতার সঙ্গে চিকিৎসা কার্যক্রম চালানো যাবে। দ্রুত রোগ শনাক্ত হবার কারণে তার চিকিৎসাও ভালো হবে। বাংলাদেশে প্রথম কোভিড-১৯ এর রোগি শনাক্ত হবার পর থেকেই পিসিআর মেশিন আনার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছিলেন রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি রাজশাহী সদর আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা। অবশেষে গেল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় এই মেশিন আসে রাজশাহীতে। এখন রামেকের ভাইরোলজি বিভাগের পাঁচটি কক্ষে ল্যাব স্থাপনের কাজ চলছে। রবিবার সেখানে গিয়ে দেখা যায়, প্রায় ২০ জন শ্রমিক বিরতিহীনভাবে ল্যাব প্রস্তুতের কাজ করছেন। রামেকের অধ্যক্ষ জানালেন, রবিবারের মধ্যেই তারা অবকাঠামোগত কাজ শেষ করতে পারবেন বলে আশা করছেন। পরেরদিন মেশিনগুলো স্থাপন করা হবে। এরপরের দিন ঢাকা থেকে একটি টিম এসে মেশিনটির ব্যবহার দেখাবেন। তারপরই রোগিদের পরীক্ষা-নিরীক্ষা শুরু করা সম্ভব হবে বলে তারা মনে করছেন।
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, রাজশাহীর পর রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালেও পিসিআর মেশিনে করোনা শনাক্ত করার পরীক্ষা শুরু হবে। পর্যায়ক্রমে দেশের সব বিভাগীয় শহরেই মেশিনটি দেয়ার পরিকল্পনা রয়েছে সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) তবে প্রথম মেশিনটি পেয়েছে রাজশাহী।

Post a Comment

0 Comments